নাদের হোসেন এর ছড়া

বৃষ্টি

টাপুরটুপুর বৃষ্টি পড়ে,
গাছে গাছে পাতা নড়ে,
মাঝে আসে আলোর ঝলক
বজ্রপাত করে পাবক।
দুপুর কিংবা সকাল বেলা,
বুঝতে দেয় না মেঘের ভেলা।
দূর আকাশে সাত রং মেখে
উঠছে বাঁকা রংধনূ খেপে।
বিচ্ছু বাহিনী খেলা করে,
বৃষ্টিতে ভিজে আনন্দ ধরে।
বৃষ্টিরদিনে ঘরে বসে,
স্বপ্ন আমার মনে ধরে।
হারিয়ে যাই অচিনপুরে,
সকাল কিংবা ভর দুপুরে।

আষাঢ়ের বার্তা

আকাশ খেপে বৃষ্টি এলো।
আষাঢ়ের বার্তা এলো।
সূর্যটা আছে ঢেকে নিয়ে,
আকাশ দখল মেঘে দিয়ে
আকেশে রঙিন ভেসে,
রংধনূর রং হেসে।
মননে আজ সৃতির লাহরী,
নয়তো কোনো গানের অন্তরী।
গুনগুনিয়ে গেয়ে যাই,
যেথায় বর্ষার শ্রেষ্ঠত্ব পাই।।

আগমনী বর্ষা

গ্রীষ্মের অগ্নি অনল পুরিয়ে,
এসেছে বর্ষার সাজ।
বৃষ্টির প্রতিটি ফোটা যেন,
প্রকৃতিকে করছে অগাধ।

ফুটছে কদম,ফুটেছে কেয়া,
দেখেছে যুগবতার।
প্রগলভে তাই স্মরণীয় হয়
বর্ষার শ্রেষ্ঠাতার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.