একানব্বইয়ে মিখাইল।। খান মুহাম্মদ রুমেল

সাম্যের স্বপ্ন ভেঙে দিয়ে গড়েছিলেন
মোহন গণতন্ত্রের ভূমি!
তারপর চোখের সামনে টুকরো টুকরো হলো
প্রিয় জনপদ পিতৃভূমি!
মহান ইউনিয়নের ওরসে জন্ম নিলো
কতো কতো সার্বভৌম ভূমি!
সবশেষে জড়িয়ে গেলো রাশিয়া
ইউক্রেনে বাজালো যুদ্ধের দামামা!
আর তিনি তখন ঝরে গেলেন একানব্বইয়ে!
কী আশ্চর্য মিল দেখেন মিখাইল-
এমন একানব্বইয়ে আপনি জ্বেলেছিলেন স্বপ্নের মশাল!
তারপর ইতিহাসের স্বপ্ন ভঙ্গ হতে হতে-
আমরা চাক্ষুষ করলাম একটা প্রলয়ঙ্কর সমর!

গনতন্ত্র যদি এলোই- আমি কেন পেলাম না অধিকার-
প্রিয় নারী বেছে নেয়ার?
প্রিয় ফুলের গন্ধ শোঁকার?
প্রিয় জলে হাত রাখার?
প্রিয় বাতাসে ভেসে যাওয়ার?
প্রিয় আকাশে উদ্দাম ওড়ার?

প্রেম কেন সার্বজনীন হলো না!
সংখ্যাগরিষ্ঠের ভুল মতের দায়ে?

ভুল সমীকরণের সামনে দাঁড় করিয়ে আমাদের
আপনি চলে গেলেন মিখাইল
আকাশে আকাশে উড়ছে প্রাণঘাতি মিসাইল!

আপনাকে ভুল নাকি শুদ্ধ বলবো
বুঝি না তাও, একেবারেই না!
এই যে মূর্খ রয়ে গেলাম- কার দায়ে?

গণতন্ত্র পুঁজিতন্ত্র সমাজতন্ত্র
সব ছাপিয়ে নাম লিখিয়ে আকাশতন্ত্রে
আপনি ভালো আছেন তো মিখাইল গর্বাচেভ?

আমি ভালো নেই
আমরা ভালো নেই!

Leave a Reply

Your email address will not be published.