আজহার মাহমুদ-এর ছড়া

ঝড়ের দিন

ঝড়ের দিনে ব্যাঙ ডাকে
ডাকে ওই আকাশ,
দরজা দিয়ে ঢুকে পড়ে
ঠান্ডা হিমেল বাতাস।

ঝড়ের দিনে খেলতে যেতে
ভীষণ ভালো লাগে,
ঝড়ের ফোটা গায়ে পড়লে
খুশির ঢেউ জাগে।

ঝড়ের দিনে বন্ধুরা সবাই
থাকি ফুটবল খেলায়,
খেলা শেষে ছুটি সবাই
আম গাছের তলায়।

তাড়াহুড়ো করে সবাই
আম কুড়িয়ে নিই,
বাসায় এসে ছোট্ট বোনকে
কুড়ানো আম দিই।

সোনার বাংলা তোমায় ভালোবাসি

মাগো আমি যুদ্ধে যাবো
দাওনা দোয়া করে,
ফিরবো মাগো পতাকা নিয়ে
যদি না যাই মরে।

বাংলা মাকে স্বাধীন করে
আসবো তোমার বুকে,
“খালা তুমি থেকো পাশে
আমার মায়ের দুঃখে।”

যুদ্ধে গিয়ে যদি মাগো
ফিরে আর না আসি
যদি আমি ধরা পড়ে যাই
দেয় ওরা ফাঁসি

তবুও মাগো আমার মুখে
থাকবে সুখের হাসি।
বলবো আমি চিৎকার করে,
সোনার বাংলা তোমায় ভালোবাসি।

আমাদের দেশ

অপরূপ সুন্দরে ভরা
আমাদের এই দেশ,
এই দেশেতে জন্ম নিয়ে
গর্ব আমার বেশ।

নানান ঋতুর এদেশ নিয়ে
অবাক পুরো বিশ্ব,
সুজলা, সুফলা, প্রকৃতি আর
আছে মনোরম দৃশ্য।

এদেশের সৌন্দর্যেও গল্প
শুনা যায় পৃথিবীর সবখানে
আমাদের এই দেশকে সবাই
বাংলাদেশ নামে জানে।

মানুষ হবো

কালাম স্যার ক্লাসে এসে করলো জিগ্যাসা;
বড় হয়ে কার আছে কি হওয়ার আশা।
মিতু বলে- ডাক্তার হবে, নিজাম বলে- ব্যংকার;
নাহিদ নাকি ব্যবসা করবে, ফয়সাল হবে অফিসার।

অনিমেষ হবে বড় নেতা, রাহিদ হবে ক্রিকেটার,
তুষার-হাসান দুজন নাকি হবে ইন্জিনিয়ার।
সবার আশা শুনে স্যার চুপ করে বসে;
সবার দিকে তাকিয়ে তাকিয়ে অল্প করে হাসে।

একটি কথা বলি তোমদের রেখো সবাই মনে
মনে রাখলে কাজে আসবে তোমাদের জীবনে।
মানুষ হবো এটাই যেন সবার আশা হয়
মানুষ হলে করতে পারবে পৃথিবীটা জয়।

One thought on “আজহার মাহমুদ-এর ছড়া

  • জুলাই ৩০, ২০২২ at ২:২৬ অপরাহ্ণ
    Permalink

    কৃতজ্ঞতা

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published.