অণুগল্প।। রিভেঞ্জ ওব ন্যাচার।। কলি নন্দি

কথায় আছে যে যাই করুক না কেনো সময় মতো ঠিক তার ফল পাবে।পৃথিবী আজ থমকে গেছে। আজ যখন সবার কাছে করোনা মহামারী রূপে দেখা দিয়েছে মানুষ তাদের কর্মের ফলের জন্য অনুশোচনা বোধ করছে। মানুষ তাদের নিজস্বার্থে বিলাসবহুল জীবনযাপন করার জন্য প্রকৃতির কোল থেকে লক্ষ লক্ষ গাছপালা কেটে ফেলছে। কিসের জন্য আবার তাও বড় বড় বিল্ডিং উঠাবে।দশ তলা বিশ তলা ফ্যাল্টে বসবাস করবে এসির ঠাণ্ডা বাতাসে ঘুমাবে। প্রকৃতি মনোরম বাতাস তো নগন্য মনে হবেই। প্রকৃতির কোলে গাছপালা রেখে তো আর অধিক অর্থ উপার্জন করা যায় না। তাই গাছপাল উজাড় করে শিল্পকারখানা স্থাপন করে মানুষ অল্প সময়ে অধিক অর্থ উপার্জন করছে।কথায় আছে,”লোভে পাপ, পাপে মৃত্যু” মানুষের লোভের জন্য আজ পৃথিবীতে মানুষের লাশের বন্যা বয়ে যাচ্ছে। প্রতিনিয়ত লক্ষ লক্ষ গাছ কেটে প্রকৃতির কোল অর্ধশূন্য করেছে। মায়ের কোল থেকে সন্তান কে কেড়ে নিলে যেমন দুঃখ হয়, ঠিক তেমন প্রকৃতির কোল থেকে তার সম্পদকে কেড়ে নিয়ে প্রকৃতিকে কাঁদিয়েছে মানুষ। যার ফলে আজ মানুষ প্রতিনিয়ত স্বজন হারা শোকে কাতর হচ্ছে। প্রিয়জনকে স্পর্শ করতে না পারা কতোটা বেদনার মানুষ আজ উপলব্ধি করতে পারছে। আইসিইউ তে বেড ফাঁকা নেই, নিত্যদিন রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেনের অভাবে মৃত্যুকে কাছ থেকে দেখছে মানুষ। অক্সিজেন না পেয়ে আজ মানুষ গাছপালার মর্ম বুঝতে পারছে। আজ এই করোনা মহামারী প্রতিরোধে সরকার যখন লকডাউন ব্যবস্থা জারি করছে তখন গরীব দুখী খিদের জ্বালায় কাতর। করোনা যেন গরীবের পেটে লাথি মারছে। তাই আমাদের সবার উচিত সবার আগে আইসিইউ এবং অক্সিজেনকে অগ্রাধিকার দেওয়া। মানুষ প্রকৃতিকে কাঁদিয়েছে প্রকৃতি আজ মানুষকে কাঁদাচ্ছে। সর্বদা মনে রাখা উচিত, “রিভেঞ্জ ওব ন্যাচার” বলে একটা কথা আছে….

Leave a Reply

Your email address will not be published.