শুভ জন্মদিন কবি ও চলচ্চিত্র পরিচালক ড. মাসুদ পথিক

কবি, চলচ্চিত্র পরিচালক ও গীতিকার মাসুদ পথিকের জন্ম ২০ নবেম্বর ১৯৭৯ সালে। তিনি নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ” চলচ্চিত্রের জন্য বাংলাদেশের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। তার পরিচালিত চলচ্চিত্র মায়া: দ্য লস্ট মাদারও ২০১৯ সালে ৮টি ক্যাটাগরিতে ১০ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করে।
তিনি কবিতায় ২০১৩ সালে কালি ও কলম HSBC ব্যংক পুরস্কার অর্জন করেন।

মাসুদ পথিক স্কুল ও কলেজের পাঠ শেষ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চলচ্চিত্র ভাষায় পি, এইচ, ডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ঢাকা কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সঙ্গে নিবিড়ভাবে যুক্ত ছিলেন।’

কর্মজীবন
মাসুদ পথিক কবিতা রচনা এবং চলচ্চিত্র নির্মাণের পাশাপাশি গবেষণার কাজ করেন। তিনি বাংলাদশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন দর্শনের উপর প্রায় দীর্ঘ পনেরো বছর যাবৎ গবেষণা করছেন।

সাহিত্যকর্ম
মাসুদ পথিক মোট ২২টি গ্রন্থের প্রণেতা। তার সাহিত্য রচনার মধ্যে রয়েছে কৃষকফুল (১৯৯৬), বাতাসের বাজার (২০০৭),একাকী জমিন(২০১৩) সেতু হারাবার দিন, চাষার বচন (২০১৬) চাষার পুত (২০১৭), চাষার কাম (২০১৮) ইত্যাদি। ড. মাসুদ পথিক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নিয়মিত প্রকাশনা ‘মাতৃভূমি’র সম্পাদনা করেছেন টানা আট বছর। তিনি ওয়ান এ্যালিভ্যানে ‘গণতন্ত্র মুক্তি পাক’, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা’ নামের বই সম্পাদনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

চলচ্চিত্র
তিনি বিখ্যাত কবি নির্মলেন্দু গুণের কবিতা অবলম্বনে তার প্রথম চলচ্চিত্র “নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ” তৈরি করেন এবং প্রথম চলচ্চিত্রেই জাতীয় পুরস্কার লাভ করেন। এই সাফল্যের পর তিনি আরো বেশ কিছু ছবির কাজ হাতে নিয়েছেন।
নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ ২০১৪
মায়া দ্য লষ্ট মাদার ২০১৯
স্ট্রিট ফিলোসোফার, ওল্ড এইজ ওলোন, কবিগাছ, অসম্পূর্ণ
এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রযোজনায় শেখ হাসিনাকে নিয়ে “আলোর পথের সারথি” নামে একটি তথ্যচিত্র নির্মাণ করেছেন।

বাংলাদেশের খ্যাতিমান চিত্রশিল্পী জনাব শাহাবুদ্দিন আহমেদের চিত্রকর্ম “নারী” এবং কবি কামাল চৌধুরীর “যুদ্ধশিশু” কবিতা অবলম্বনে মুক্তিযুদ্ধ, বীরাঙ্গনা এবং যুদ্ধশিশুকে কেন্দ্র করে “মায়া: দ্য লস্ট মাদার” চলচ্চিত্রটি ২৭ ডিসেম্বর ২০১৯ সালে মুক্তি পেয়েছে। সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন ভারতের আলোচিত অভিনেত্রী মমতাজ সরকার। মমতাজ সরকার যাদুকর পিসি সরকার জুনিয়রের মেয়ে। চলচ্চিত্রটি ৪৪তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৯-এ সর্বোচ্চ আটটি বিভাগে ১০টি পুরস্কার লাভ করে।

পুরস্কার ও সম্মাননা
মাসুদ পথিক চলচ্চিত্র ও সাহিত্যে একাধিক পুরস্কার ও সম্মান পেয়েছেন; তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো:

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার – ২০১৩ – নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ চলচ্চিত্রের জন্য।
বেস্ট ডিরেক্টর – টেলিসিনে অ্যাওয়ার্ড, কলকাতা, ভারত।
অফিশিয়াল সিলেকশন – সার্ক ফিল্ম ফেস্টিভ্যল, শ্রীলঙ্কা।
কালি ও কলম তরুণ কবি ও লেখক পুরস্কার, ২০১৩ (কবিতায়);
ঋত্বিক ঘটক স্মৃতি পদক – কলকাতা ২০১৬।
এসবিএসপি সাহিত্য সম্মাননা ও অর্থ পুরস্কার ২০১৭
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার – ২০১৯ – শ্রেষ্ঠ কাহিনীকার – মায়া: দ্য লস্ট মাদার” চলচ্চিত্রের জন্য।
বেস্ট ফিল্ম, ট্যাগোর ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড
বেস্ট ডিরেক্টর, ইন্দো আমেরিকার ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড (২০২১)
বেস্ট ফিল্ম, ইন্দো আমেরিকার ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড (২০২২)
ট্রাব অ্যাওয়ার্ড, বেস্ট ডিরেক্টর (২০২২)
ড. মাসুদ পথিক কবিতা, গান এবং চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য এখন পর্যন্ত ৩৯ টি পুরস্কার পেয়েছেন।

One thought on “শুভ জন্মদিন কবি ও চলচ্চিত্র পরিচালক ড. মাসুদ পথিক

  • নভেম্বর ২০, ২০২১ at ৮:৩১ পূর্বাহ্ণ
    Permalink

    শুভ জন্মদিন ও শুভেচ্ছা প্রিয়। ভালো কাটুক আপনার প্রতিটি মুহূর্ত।

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *